শিরোনাম
গ্রুপ ক্যাপ্টেন কামালের জানাজা সম্পন্ন,বিভিন্ন সংগঠনের শোক প্রকাশ। শিক্ষা উপমন্ত্রীর পক্ষে ৮ নং শুলকবহর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের ইফতার বিতরণ  লাইলাতুল কদরের রাতে মাননীয় শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল এমপি এর পক্ষ থেকে রোজাদার পথচারীদের মাঝে সাহরী বিতরণ। সবার ঈদে আমাদের খুশি- হোপ ফাউন্ডেশন শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল এর পক্ষ থেকে রোজা দারের মাঝে ইফতার বিতরণ। হোপ ফাউন্ডেশন এর ৬ষ্ট প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উৎযাপন ও ইফতার ২০২২ অনুষ্ঠিত হাটহাজারীতে আহলে সুন্নাতের স্মারক আলোচনা সভা পতেঙ্গায় মিশন গ্রুফের উদ্যোগে অসহায়দের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ। বাংলাদেশ আওয়ামী মোটর চালক লীগ নোয়াখালী জেলা কমিটির আলোচনা সভা ও ইফতার সাবেক ছাত্র নেতা আরশেদুল আলম বাচ্চুর পক্ষ থেকে ইফতার বিতরণ।
মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ১১:০৭ পূর্বাহ্ন

বিভেদ ভুলে এক মঞ্চে ৪০নং ওয়ার্ড আ.লীগ নেতৃবৃন্দ

হাসান রিফাত / ২৮৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১

ওয়ার্ড ও থানা ইউনিটের সম্মেলনকে সামনে রেখে সব বিভেদ ভুলে এক মঞ্চে মিলিত হয়েছেন উত্তর পতেঙ্গা ৪০নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ। আজ বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় কেইপিজেড বেপজা অফিস সংলগ্ন কাসাব্লাংকা রেস্টুরেন্টে স্বাস্থ্যবিধি মেনে উত্তর পতেঙ্গা ৪০নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের এক বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে দীর্ঘদিন ধরে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মধ্যে বিরোধের কারণে বিভিন্ন জাতীয় ও রাজনৈতিক অনুষ্ঠানে তাঁরা পৃথকভাবে কর্মসূচি পালন করে আসছিল।

তবে সম্প্রতি চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের হস্তক্ষেপে এই দুই নেতা এক মঞ্চে উপস্থিত হয়েছেন।
আজকের বর্ধিত সভায় উপস্থিত ছিলেন ৪০নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি কাউন্সিলর আবদুল বারেক কোম্পানি ও সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চৌধুরী আজাদসহ ওয়ার্ড ও থানা আওয়ামীলীগের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ।

বৈঠকে অনুষ্ঠিত একাধিক নেতাকর্মী জানান, বহু দিন পর এক মঞ্চে দুই নেতাকে দেখতে পেয়ে নেতাকর্মীদের মধ্যে স্বস্তি ফিরে এসেছে। তারা বলেন, সভায় দুই নেতাকেই বেশ স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করতে দেখা গেছে। সম্মেলনকে কেন্দ্র করে আবারও চাঙা হচ্ছে পতেঙ্গা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক নেতা বলেন, মূলত কাউন্সিলর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দুই নেতার মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। আজ দীর্ঘদিন পর দুই নেতাকে একসাথে দেখে ভালো লাগলো। আশা করি সম্মেলনের পরেও এই বন্ধন টিকে থাকবে।

জানা যায়, বিগত সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে দলীয় মনোনয়নের জন্য লড়েছিলেন আবদুল বারেক কোম্পানি, জয়নাল আবেদীন চৌধুরী আজাদ ও আওয়ামী লীগ নেতা ফরিদুল আলম সহ কয়েকজন দলীয় নেতাকর্মী। কিন্তু শেষ পর্যন্ত নৌকার টিকেট হাতে পান আবদুল বারেক কোম্পানি। তারপর থেকেই দুই নেতার মধ্যে বিরোধ বাড়তে থাকে।

আজকের বৈঠকে মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য কামরুাল হাসান বুলু, সাবেক কাউন্সিলর হাজী জয়নাল আবেদীনসহ সিনিয়র নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ