শিরোনাম
আহম্মদীয়া হাফেজিয়া ফোরকানিয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানার উদ্যোগে ঈদে মিলাদুন্নবী মাহফিল অনুষ্ঠিত। পতেঙ্গায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মৌন প্রতিবাদ। কুমারী দিঘীরপাড় এলাকাবাসির উদ্যোগে ঈদে মিলাদুন্নবী মাহফিল অনুষ্ঠিত ফটিকছড়ি সৈয়দ বাড়ী দরবার শরীফের জসনে জুলুস পীর সাবের শাহ এর সদারতে অনুষ্ঠিত হলো চট্টগ্রামের বৃহত্তর জসনে জুলুশ লোহাগাড়ার চুনতিতে দিন-দুপুরে মুদি দোকানে চুরি মাদ্রাসার ৬ শিক্ষার্থীর চুল কাটলেন শিক্ষক নকশা সংশোধন সিমেন্ট ক্রসিং মোড়ে যুক্ত হচ্ছে র‌্যাম্প নিজের তৈরি বিমানের যাত্রী হবার স্বপ্ন আশিরের পতেঙ্গা সি-বিচ দোকান মালিকদের মেয়রের উপহার প্রদান
বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৪৭ পূর্বাহ্ন

নকশা সংশোধন সিমেন্ট ক্রসিং মোড়ে যুক্ত হচ্ছে র‌্যাম্প

ডেস্ক নিউজ / ৯৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৮ অক্টোবর, ২০২১

নগরীর সিমেন্ট ক্রসিং এলাকায় এই র‌্যাম্পটি যুক্ত হবে। এ নিয়ে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে প্রকল্পে মোট ১৫টি র‌্যাম্প নির্মিত হবে। বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন কার্যালয়ে এ সিদ্ধান্ত হয়। এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণ সংশ্লিষ্ট চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের একটি টিম চসিক মেয়র এম রেজাউল করিমের সাথে আলোচনা শেষে এ সিদ্ধান্ত হয়।

এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের প্রকল্প পরিচালক মাহফুজুর রহমান বলেন, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের ডিজাইন আমরা মেয়র মহোদয়কে দেখিয়েছি। তিনি আমাদের ডিজাইনের সাথে একমত পোষণ করেছেন। তবে ডিজাইনের বাইরে তিনি সল্টগোলা ক্রসিং এলাকায় আরো একটি র‌্যাম্প নির্মাণের কথা জানান। আমরা সে ব্যাপারে একমত পোষণ করেছি।

তিনি আরো বলেন, টাইগারপাস এলাকায় ফ্লাইওভার নির্মাণ নিয়ে সিটি কর্পোরেশনের সাথে যে জটিলতা ছিল তাও সমাধান হয়েছে।
আমরা আগামী ডিসেম্বরেই টাইগারপাস ও দেওয়ানহাট এলাকায় ফ্লাইওভারের নির্মাণ কাজ শুরু করবো।

সিডিএ’র প্রধান প্রকৌশলী কাজী হাসান বিন শাম্ধসঢ়;স বলেন, টাইগারপাস ও দেওয়ানহাটের ফ্লাইওভার প্রসঙ্গে সিটি কর্পোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী তাদের প্রেজেন্টেশন মেয়র মহোদয়কে দেখিয়েছেন, আমরা সিডিএ’র প্রেজেন্টেশন দেখিয়েছি। মেয়র মহোদয় আমাদের প্রেজেন্টেশনে একমত পোষণ করেছেন। এখন টাইগারপাস এলাকায় এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণে সিটি কর্পোরেশনের কোন বিরোধ থাকছে না। এছাড়া, সিমেন্ট ক্রসিং এলাকায় নতুন করে একটি র‌্যাম্প যুক্ত করার জন্য মেয়র মহোদয় প্রস্তাব করেছেন। আমরা সে প্রস্তাবে একমত হয়েছি।

এরআগে গত সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝিতে বারিক বিল্ডিং থেকে কাস্টম পর্যন্ত অংশে ফ্লাইওভার নির্মাণে বন্দরের অনুমতি মিলেছে।

উল্লেখ্য, বিমানবন্দর কেন্দ্রিক যানজট নিরসনে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (সিডিএ) এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করে। তিন হাজার ২৫০ কোটি ৮৩ লাখ টাকা ব্যয়ে লালখান বাজার থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণ প্রকল্পটি ২০১৭ সালের ১১ জুলাই একনেকে অনুমোদন পায়। ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ